কোন নায়িকা নয়, বাস্তবেই যাকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন শাকিব খান!

শাকিব খান বাংলা চলচিত্রের অন্যতম একটি নাম। তবে তিনি বর্তমানে সিনেমা জগত থেকে বেশি আলোচিত তার সংসার জীবন নিয়ে। সম্প্রতি বিচ্ছেদ হয়েছে অপু বিশ্বাসের সাথে। তবে সেটির রেশ কাটতে না কাটতে শোনা যাচ্ছে নতুন বিয়ে করতে যাচ্ছেন শাকিব খান।

ঢালিউডের নবাব শীর্ষনায়ক শাকিব খান এখন শান্তির সন্ধানে ছুটছেন। তার কথায়, দেখতে দেখতে বেলা ঢের গড়াল। পৃথিবীর উত্তর-দক্ষিণ, পূর্ব-পশ্চিম আর ঈশান কোণেও কম ঘোরা হলো না।

সৃষ্টিকর্তা আমাকে যশ, খ্যাতি, অর্থ, বিত্ত সবই দিয়েছেন। বলতে পারেন তার ইচ্ছায় আমার জীবন এখন পূর্ণতায় ভরা। তারপরও একটা শূন্যতা আর একাকিত্ব আমাকে গ্রাস করছে। সময় তো কারও জন্য অপেক্ষা করে না।

নের পরিধি বড়ই ছোট। সেই ছোট জীবনে কিছু বড় কাজ মানুষকে মৃত্যুর পরও অমর করে রাখে। শীর্ষনায়কের কথায়, আমি এখন আমার জীবনকে নতুন করে সাজাতে চাই। স্থির মানুষ হতে চাই।

এর জন্য দরকার একজন রিয়েল লাইফ পার্টনার। ক্ষোভ ঝরা কণ্ঠে তিনি বলেন, আগেও যে আমি এই চেষ্টা করিনি তা কিন্তু নয়। মিডিয়াকে ভালোবাসি বলে এই জগতের মানুষের সঙ্গে চিরদিনের বাঁধনে নিজেকে বেঁধেছিলাম। না, শান্তি পাইনি, প্রতারিত হয়েছি। যাদের বেশি বিশ্বাস করেছি তারাই আমার পিঠে ছুরি বসিয়েছে। হৃদয়ে রক্ত ঝরিয়েছে।

দৃঢ়প্রত্যয়ী শাকিব বলেন, এভাবে আর নিজের রক্তক্ষরণ হতে দিতে পারি না। এবার পার্সোনাল আর প্রফেশনাল লাইফের মধ্যখানে দৃশ্যমান বিভক্তি টানতে চাই। কাজের জন্য শোবিজ দুনিয়া আর ব্যক্তিজীবনে অন্য ভুবনে বাস করতে চাই। এবার আমি যার সঙ্গে জীবন বাঁধব সে হবে শোবিজ নয়, অন্য ভুবনের বাসিন্দা। তার সুখের জন্য আমার সব প্রাচুর্য আর ভালোবাসা নিংড়ে দেব। বিনিময়ে চাইব একটু শান্তি আর সুখ।

হতাশা নিয়ে নবাব শাকিব বলেন, হয়তো ফেলে আসা জীবনে উচ্ছৃঙ্খলতাকে প্রশ্রয় দিতে গিয়ে কখন কোথায় গতিরোধ করতে হবে তা বুঝে উঠতে পারিনি। আর এই না পারার দুর্ঘটনা আমাকে অনেকটা আহত আর পঙ্গু করেছে। সেই ক্ষত সারাতে চাই। এ জন্য প্রয়োজন বুদ্ধিদীপ্ত মন আর উজাড় করা ভালোবাসায় ভরা জীবনসাথী।

যে আমার পথচলাটা শুধরে দেবে। দিনশেষে আমাকে একবিন্দু শান্তি দেবে, ভালোবাসায় আমার ভুবনটা ভরিয়ে দেবে। আমার পাশে বসে হাতপাখার বাতাসে পরম মমতায় সারাদিনের ক্লান্তি দূর করে দেবে। আমি কি পাব না এমন ভালোবাসার মানুষের সন্ধান? আমি তো বড় বেশি অপরাধ করিনি। যা হয়েছে সবই দুর্ঘটনা।

শান্তি সন্ধানী শাকিবের প্রশ্ন, নাটোরের বনলতা সেনের মতো কেউ কি আমাকে একদণ্ড শান্তি দেবে না। আগামী দিনের পরিকল্পনার ছক এঁকে শীর্ষনায়ক বলেন, বর্তমান সময়ে আমার হাতে থাকা সব কাজ গুছিয়ে এনে আগামী বছর নতুনরূপে নিজেকে সাজাতে চাই। অন্য এক শাকিব খানে পরিণত হতে চাই।

এর জন্য দরকার মন বোঝার মতো একজন পথচলার সাথী। যে সারাদিন আমার মনটাকে শান্তিতে ভরিয়ে রাখবে। আবারও শাকিবের প্রশ্ন, কোথায় পাব তারে? আমি এখন সেই শান্তির সন্ধানে আছি। সেই শান্তির হাত ধরে নতুন বছরে নতুন করে পথচলার হিসাব-নিকাশটা করতে চাই।

অভিনয় নিয়ে দিনরাত এক নিঃশ্বাসে আর দিগ্বিদিক ছোটাছুটি নয়। এবার স্থির হব। নিজের প্রযোজনার ঘর থেকে একনাগাড়ে মানগত ছবি নির্মাণ দিয়ে দেশীয় চলচ্চিত্র ভাণ্ডারকে পূর্ণতা দিয়ে যাব। আর সবই সম্ভব হবে যদি মনের মতো একজন পথচলার সাথী পেয়ে যাই। আল্লাহর কাছে এখন আমার এই একটিই প্রার্থনা—
‘আমি শান্তি চাই’…।

Hits: 53

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!