ফ্রান্সের মেয়ে বাংলাদেশী বউয়ের সময় কাটছে নামাজ রোজা করে…

প্রেমের টানে বাংলাদেশে প্রেমিকের কাছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে যত মেয়ে এসছে তার মধ্যে অন্যতম ফ্রান্সের মেয়ে সামান্তা লত।তিনি বাংলাদেশে এসে প্রেমিককে বিয়ে করেন । তার নাম বদলিয়ে বর্তমানে রাখা হয়েছে জান্নাতুল ফেরদৌস।

কেমন আছে এই বাঙ্গালী বধু? জানতে চাইলে মুচকি হেসেই সালাম দিয়ে শুভেচ্ছা ও সকলের খোঁজ খবর জানতে চেয়েছে। সে রোজা রাখছে নামাজ পড়ছে।

ইসলামের বিধি ও নিয়ম কানুন দ্রুত রপ্ত করার চেষ্টা করছে। শ্বশুর সাবেক চেয়ারম্যান জনাব আবু বক্কর সিদ্দিক ভুঁইয়া আদরের প্রিয় পুত্র বধুর জন্য ফ্রান্স ভাষায় মুদ্রণকৃত পবিত্র একটি কোরআন শরিফ না পাওয়াতে একটু কষ্ট হচ্ছে।

বিভিন্ন অনলাই ওয়েব সাইডে ফ্রান্স ভাষার কোরআন শরিফ পেয়ে সেখান থেকেই তালিম নিচ্ছেন তিনি। শ্বাশুড়ী মরিয়ম বেগম মহা খুশি এমন ভাগ্যবান অত্যন্ত একজন ভাল মেয়েকে পুত্রবধু হিসেবে পেয়ে। সার্বক্ষনিক বউকে নিয়ে শ্বাশুড়ী মরিয়ম বেগম ব্যস্ত।

আত্মীয় স্বজনেরা আসছে বউকে দেখতে।ফ্রান্সে অবস্তানরত সামান্তা লত অরপে জান্নাতুল ফেরদৌস এর পিতা মি:গ্রাফ পাছকেল ও মাতা মিসেস সাবরিনা লত মেয়ের মুখে বাংলাদেশের মানুষ কৃষ্টি সংস্কৃতি ও সুমহান ঐতিহ্যের কথা শুনে তারাও মহাখুশি।

এলাকার মানুষ এ বিয়ের খবর শুনে সবাই অনেক খুশি। তারা দুজনই বাংলাদেশের মানুষকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছে । সামান্তা অরপে জান্নাতুল ফেদৌসের ভাষাগত কারনে অনেকটা সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে ।

জান্নাতুল ফেরদৌস জানেনা বাংলা ভাষা। কিছুটা ইংরেজি জানে। আবার গ্রামের মানুষেরা জানেনা ফ্রান্স ভাষা। এ কারনে উভয়ের মাঝে দেখা দিয়েছে একটু সংকট। তবে সামান্তা অত্যন্ত ভাল এবং গুণী পরিবারের মেয়ে।

সে সব সমস্যা দ্রুতই কেটে উঠতে পারবে। জান্নাতুল ফেরদৌস সামান্তা লত বাংলাদেশের সকল মানুষকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে এবং সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছে। তারা যাতে সুখে শান্তিতে দাম্পত্য জীবন কাটাতে পারে ।

Hits: 38

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!