গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারকে আটক করেছে র‌্যাব-১০…

গণজাগরণ মঞ্চের একাংশের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকারকে আটক করেছে র‍্যাব-১০। বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে রাজধানীর শাহবাগে এক কর্মসূচি থেকে তাকে আটক করা হয়।

‘নির্বিচারে মানুষ খুনের বিরুদ্ধে জাগো বাংলাদেশ’ স্লোগানে মাদকবিরোধী অভিযানে বিচারবর্হিভূত হত্যা বন্ধে সমাবেশটির আয়োজন করা হয়। ইমরান এইচ সরকারকে ওই অনুষ্ঠান থেকেই আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে ঠিক কী কারণে তাকে আটক করা হয়েছে তা নিয়ে পরিষ্কার কিছু জানায়নি র‍্যাব। তবে প্রাথমিকভাবে র‍্যাব জানিয়েছে, অনুমোদন ছাড়া কর্মসূচি পালন করতে যাওয়ায় ইমরানকে আটক করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকাল ৪টার দিকে পূর্বঘোষিত কর্মসূচিতে যোগ দিতে শাহবাগ আসেন ইমরান। পরে পাশে চলা ছাত্র ইউনিয়নের একটি কর্মসূচির দিকে এগিয়ে যান এবং ছাত্র ইউনিয়নের নেতাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। সাড়ে চারটার দিকে সেখানে একটি মাইক্রোবাস উপস্থিত হয়। মাইক্রোবাস থেকে সাদা পোশাকে র‌্যাবের কয়েকজন সদস্য নেমে ইমরানকে গাড়ি তুলে নিয়ে যায়। পেছনে তখন চারটি র‌্যাবের গাড়ি ছিলো।

এ সময় ছাত্র ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দীসহ সংগঠনটির কর্মীরা বাধা দিলে র‌্যাব সদস্যরা তাদের লাঠিপেটা করে। এতে ঢাকা মহানগর ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি দীপক শীলসহ অন্তত ৩ জন আহত হয়েছেন।

মহানগর ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি দীপক শীল গণমাধ্যমকে বলেন, হঠাৎ সিভিল ড্রেস পরা কয়েকজন লোক মাইক্রোবাসে করে ইমরান ভাইকে তুলে নিয়ে যাচ্ছিল। আমরা বাধা দিলে র‌্যাব সদস্যরা লাঠিপেটা করে।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান গণমাধ্যমকে বলেন, সেখানে ছাত্র ইউনিয়নের কর্মসূচি ছিল। আমরা তাদের নিরাপত্তা দিচ্ছিলাম। ইমরান এইচ সরকারকে পুলিশ তুলে নিয়ে যায়নি। র‌্যাব-১০ এর সদস্যরা তাকে নিয়ে গেছে।

(জাস্ট নিউজ/এমআই/একে/১৪০ঘ.)

Hits: 14

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!