বিবাহিত জীবনে সুখ না পেয়ে অনেকেই আমার কাছে আসতেন…

প্রত্যেক পেশার নিজস্ব গুণাগুণ রয়েছে। তবে বিশ্বের এমন কিছু পেশাও রয়েছে, যা নিয়ে মানুষের কৌতূহলের অন্ত নেই। এমনই এক পেশা দেহ ব্যবসা।

এ পেশা নিয়ে প্রকাশ্যে হয়তো অনেকেই বিরক্তি প্রকাশ করে থাকেন, কিন্তু অনেকেই আবার এ সম্পর্কে জানতে ভীষণই আগ্রহী। কেমন হয় দেহব্যবসায়ীদের জীবন? কোন কোন অভিজ্ঞতার সাক্ষী হতে হয় তাদের?

এ প্রশ্নই করা হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার এক দেহব্যবসায়ীকে। কারণ নিজের পেশাগত জীবনে ১২০০-রও বেশি পুরুষের সঙ্গে সঙ্গমে লিপ্ত হয়েছেন তিনি।

প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর থেকেই এই কাজ করছেন মহিলা। নিজের জীবনে বহু অদ্ভুত অভিজ্ঞতার সাক্ষী হয়েছেন তিনি। এর মধ্যে থেকেই কিছু এমন অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন, যা আজও তার মনে রয়ে গিয়েছে।

তিনি জানান, এক ব্যক্তি তাকে নিয়মিত টাকা দিতেন কেবল সঙ্গে হাঁটার জন্য ও একটি ঘোরানো সিঁড়ি বেয়ে নামার জন্য। এমন এক খদ্দের ছিলেন যিনি তাকে কেবল নগ্ন হয়ে বসে থাকার জন্য পারিশ্রমিক দিতেন। তারপর নিজেই হস্তমৈথুন করতেন।

মহিলা জানান, অনেকেই নিজের বিবাহিত জীবনে সুখ না পেয়ে তার কাছে আসতেন। কিন্তু এক ব্যক্তি এমন ছিলেন যিনি স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে বলতে সঙ্গমে লিপ্ত হতেন। আর ভাবতেন স্ত্রী কিছুই বুঝতে পারবে না। কিন্তু এমনটা যে নয় তা ওই ব্যক্তি ভবিষ্যতেই টের পেয়ে গিয়েছিলেন।

টাকার জন্য দেহব্যবসার পেশায় এসেছিলেন ঠিকই, তবে মানুষের শরীরের একটা ন্যূনতম সুখের চাহিদা থাকে। তা এই মহিলার ক্ষেত্রেও ছিল।

মাঝেমধ্যে এমন খদ্দের আসত, যারা ভীষণ অপরিষ্কার। এদের মুখেও আবার বাজে গন্ধ থাকতো। প্রথম প্রথম এমন খদ্দের মেনে নিলেও পরে আর এমন মানুষদের সঙ্গে ব্যবসা করতেন না তিনি।

Hits: 48

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!