সৌদিদের তরুণীরা যেভাবে ব্যবহার হচ্ছেন জানলে আতকে উঠবেন!

তিন বছরের রাজনৈতিক অচলাবস্থা ও যুদ্ধ পরিস্থিতির সুযোগে অসহায় সিরিয় তরুণী শরণার্থীদের ভোগ লালসার পাত্রে পরিণত করেছে প্রতিবেশী দেশগুলো বিশেষ করে, সৌদি আরবের ধনাঢ্য নাগরিকরা।

যুদ্ধের কারণে যে সব শরণার্থী মেয়ে তাদের সহায়, সম্পদসহ অভিভাবক হারিয়েছে তাদেরকে সহজ টোপ হিসেবে বেছে নিয়েছে এসব মানুষ। ব্রিটিশ পত্রিকা ইনডিপেন্ডেন্ট গভীর উদ্বেগের সঙ্গে এ খবর প্রকাশ করেছে।

রিপোর্টে বলা হয়, সিরিয়ার পরিবারগুলোকে বয়স্ক ধনাঢ্য সৌদি নাগরিকদের সঙ্গে তাদের অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েদের বিয়ে দিতে বাধ্য করছে।

সিরিয়ার ১৬ ও ১৭ বছর বয়সী দু’বোনকে সৌদি আরবের এক বয়স্ক নাগরিকের সঙ্গে জোর করে বিয়ে দেয়া হয়। এর ২০ দিন পর ওই লম্পট অদৃশ্য হয়ে যায়।

মানব-পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক সংস্থা- আইওএম-এর শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা আমিরা মোহাম্মেদ বলেন, “এ রকম অসংখ্য ঘটনার খবর আমাদের কাছে রয়েছে, যে বাইরের দেশ থেকে এসে সিরিয়ার মেয়েদের বিয়ে করছে। আর বিয়ে হচ্ছে শুধুমাত্র যৌন সম্ভোগের ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার জন্য। কারণ, এসব বিয়ে খুবই অল্প সময়কাল টিকে থাকে। এমনকি তা মাত্র ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত স্থায়ী হয়।

এসব ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে মানবাধিকার সংগঠনগুলো।

Hits: 58

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!