চাকরি হারিয়ে যেভাবে দিন কাটছে আলোচিত সেই ফারহানা নিশোর

জনপ্রিয় মিডিয়ামুখ ফারহানা নিশো। চলতি বছরেই একুশে টেলিভিশন থেকে বরখাস্ত হন জনপ্রিয় এই মুখ। চাকরি হারিয়ে এখন কেমন আছেন ফারহানা নিশো?

যদিও এই ব্যাপারে তার মুখ থেকে কোন কিছু জানা সম্ভব হয়নি। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বেশ সরব ফারহানা নিশো।

নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে সম্প্রতি কিছু ছবি প্রকাশ করেছেন। সেই ছবি দেখে বুঝা যায় যে, বেশ ভালো সময় পার করছেন জনপ্রিয় মিডিয়াব্যক্তিত্ব ফারহানা নিশো।

ছবিতে দেখা যায়, তিনি রান্নার কাজে ব্যস্ত। তবে সেই ছবিগুলো শুটিংয়ের বলে জানানো হয়। তবে কিসের শুটিং সে ব্যাপারে কিছুই জানা যায়নি।

বরখাস্তের পর অনেকটা সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকেও উদাও ছিলেন। তবে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সময় দিচ্ছেন তিনি।

আর তাকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম পেয়ে উচ্ছ্বাসিত ভক্তরা। বর্তমান সময় কীভাবে কাটছে ? এই ব্যাপারে তার সাথে যোগাযোগ করলেও কোন কিছু জানা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১৭ মে একুশে টেলিভিশনের অনুষ্ঠান প্রধানের পদ থেকে বরখাস্ত তাকে বরখাস্ত করা হয়। তবে ঠিক কী কারণে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি তখন।

এ নিয়ে তৈরি হয় নানা গুঞ্জন। এদিকে নিশোকে বরখাস্তের কারণ হিসেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয় উঠে এসেছে নানা তথ্য।

যার একটি রাজধানীর বনানীতে ছাত্রী ধর্ষণের অন্যতম আসামি নাঈম আশরাফের সঙ্গে ফারহানা নিশোর বেশ কিছু সেলফি। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মিডিয়ার অনেকেই।

তবে ১৭ মে ফারহানা নিশোকে পাঠানো বরখাস্তপত্রে তিনটি কারণ উল্লেখ করে একুশে টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ। চ্যানেলটির মানবসম্পদ বিভাগ থেকে গণমাধ্যমের হাতে আসা সেই বরখাস্তপত্রে উল্লেখ করা হয়-‘আপনি একুশে টেলিভিশন লিমিটেডের অনুষ্ঠান বিভাগ প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

প্রাতিষ্ঠানিক দায়িত্ব সম্পর্কিত কর্মকান্ড পর্যবেক্ষণ, পর্যালোচনা ও আত্মপক্ষ সমর্থনে আপনার প্রদত্ত বক্তব্য ও উপস্থাপিত নথিগুলো আমলে নিয়ে প্রমাণ পাওয়া যায় যে,

ক. আপনি আপনার নিয়োগপত্রের ১০নং শর্ত ভঙ্গ করে অন্য ব্যবসায় জড়িত হয়েছেন এবং ব্যবসায়িক সম্পর্ক বজায় রেখেছেন।

খ. আপনি প্রতিষ্ঠানের আর্থিকনীতি ও শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন।

গ. আপনি একুশে টেলিভিশন লিমিটেডের ব্যবসা সম্পর্কে প্রতারণা ও অসাধুতার আশ্রয় নিয়ে প্রতিষ্ঠানকে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছেন। উল্লিখিত অসদাচরণের দায়ে আপনাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হলো।’

অনেক নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে গেল বছর ফেব্রুয়ারিতে একুশে টেলিভিশনে যোগ দেন ফারহানা নিশো।

তখনই তার যোগদান নিয়ে চ্যানেলকর্মীদের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়, যা প্রাকাশ্যে চলে এসেছিল। উপস্থাপক, সংবাদপাঠিকা ও বিপণন কর্মকর্তা হিসেবে বেশ জনপ্রিয় ফারহানা নিশো।

চ্যানেল ওয়ান ও বৈশাখী টিভির করপোরেট অ্যাফেয়ার্স বিভাগের প্রধান হিসেবেও কাজ করেছেন দীর্ঘদিন।

২০০৩ সালে এনটিভিতে সংবাদ উপস্থাপক হিসেবে নিশোর ক্যারিয়ার শুরু হলেও মাঝে গ্রামীণফোনের টেকনিক্যাল ডিভিশন ও ওয়ারিদ টেলিকমে প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট বিভাগেও কাজ করেন বেশ কিছুদিন।

Hits: 33

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!